Banner
অন্যান্য
 
Front face of PMO Library প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় লাইব্রেরি, একটি বিশেষ গ্রন্থাগার, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়কে রেফারেন্স সেবা প্রদানের জন্য এই গ্রন্থাগার প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ১৯৯১ সালে পার্লামেন্টারী সরকার ব্যবস্থা চালু হলে এই গ্রন্থাগারটির নাম হয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় লাইব্রেরি । ১৯৯১ সালের আগে এ গ্রন্থাগারটির নাম ছিল রাষ্ট্রপতির সচিবালয় গ্রন্থাগার। ধারনা করা হয়, গভর্নর হাউজ (বঙ্গভবন)-এর গ্রন্থগারটি রাষ্ট্রপতির সচিবালয় গ্রন্থাগার হিসাবে রুপান্তরিত হয়। নাম যাই হোক না কেন এ গ্রন্থগারটি সব সময় রাষ্ট্র/সরকার প্রধানের গ্রন্থাগার হিসাবে কাজ চালিয়ে আসছে। সরকারী দলিল যেমন-ঢাকা গেজেট ১৯৪৮ সাল হতে বাংলাদেশ গেজেট শুরু হতে সংরক্ষিত আছে, অলংকৃত ও হাতে লেখা সংবিধানের একটি খসড়াঁ সংখ্যা এখানে সংরক্ষিত আছে। ১৯৮৭ সালে রাষ্ট্রপতির সচিবালয় এ গ্রন্থাগারসহ পুরাতন সংসদ ভবন,তেজগাঁও,ঢাকায় স্থানান্তরিত হয়। গ্রন্থগারটি বর্তমানে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত ও শীততাপ নিয়ন্ত্রিত দ্বৈত কাঠামোর দ্বিতল ভবনে অবস্থিত।

এই গ্রন্থাগারে বর্তমানে ৩১ হাজারের বেশী প্রকাশনা রয়েছে। এখানে লাইব্রেরি প্রকাশনা সমূহ Dewey Decimal classification নিয়ম অনুযায়ী বিন্যাসিত । এখানে ১৭ হারের বেশী বই অন লাইন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে অন্তভূক্তি করা হয়েছে। এখানে ৫ হাজারেরও বেশী বিভিন্ন ধরনের ই প্রকাশনাও রয়েছে। এই গ্রন্থাগারে কিছু আর্কাইভাল সংগ্রহ রয়েছে। এখানে রয়েছে বাংলাদেশের প্রথম হস্তলিখিত সংবিধানের খসড়া এবং বিভিন্ন কমিশনের রিপোর্ট সমূহ। এই লাইব্রেরী অনেক সংখ্যাক পেপার, পত্রিকা ও জার্নাল ক্রয় করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস শাখা এবং এ কার্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দৈনিক সরবরাহ করে হয়ে থাকে। এখানে ব্যবহারকরীদের ইন্টারনেট ও কম্পিউটার সেবাও প্রদান করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গ্রন্থাগার একটি রেফারেন্স গ্রন্থাগার এবং এর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের তথ্য সেবা প্রদানের জন্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তবে কোন আগ্রহী বাংলাদেশী নাগরিক কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে এই গ্রন্থাগার ব্যবহার করতে পারবে। অতি সম্প্রতি একটি সিদ্ধান্ত হয়েছে যে গবেষকগণ তাদের গবেষণার জন্য কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে এই গ্রন্থাগার ব্যবহার করতে পারবে। বর্তমানে এই কার্যালয়ের কর্মকর্তা কর্মচারী সহ দৈনিক ব্যবহারকারী সংখ্যা ৫০০ এবং এর সদস্য সংখ্যা ৯০০ জন। এছাড়া বিভিন্ন সরকারী,বেসরকারী অফিস ও সাধারণ মানুষ অনলাইনে এই গ্রন্থাগার ব্যবহার করে থাকে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় লাইব্রেরি তার ব্যবহারকারীদের স্বয়ংক্রিয় তথ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য অনলাইন ম্যানেজমেনস্ট সফটওয়্যার ’ই-লাইব্রেরি’ সেবা চালু করেছে। ফলে কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা,কর্মচারীরা নিজেদের ডেস্কে বসেই অনলাইনে ই-বুক, ই জার্নাল, ই-ম্যাগাজিন পড়তে ও ডাইনলোড করতে পারবেন। ই-লাইব্রেরিতে বর্তমানে ই-বুক, ই-জার্নাল, এবং প্রায় ১৮ হাজার শিরোনামের বইয়ের বিবলিওগ্রাফিক তথ্য রযেছে। এ সংখ্যা ক্রমাগতভাবে বাড়ছে। লাইব্রেরির বই ও জার্নালগুলো ইস্যু, রির্টার্ণ, এন্টিসহ বই লেনদেনের সকল প্রক্রিয়া ই-লাইব্রেরি সফটওয়্যার ব্যবহারকারীরা লগইন করে প্রয়োজনীয় বই ও জার্নাল পড়ার সুযোগ পাচ্ছেন। তাছাড়া, লাইব্রেরিতে বিদ্যমান সকল বই, জার্নাল ও ম্যাগাজিন এর লেখক, শিরোনাম, বিষয়, কল নাম্বার, কী-ওয়ার্ড, প্রকাশক ও প্রকাশকাল অনুযায়ী এ্যাডভান্স সার্চসহ আলফা-নিউরেরিক ওয়ার্ড, বিষয় ও আর্টিক্যালস অনুসারে বিশদভাবে সার্চ করতে পারবেন।

ডিজিটাল লাইব্রেরি সেবা আপনাকে বিভিন্ন ধরনের ই তথ্য সেবা (e-service) প্রদান করবে। এখানে আপনি বিভিন্ন আইন, ই-বুক, ফরম, জেলা ভিত্তিক ম্যাপস সহ অন্যান্য তথ্যের লিঙ্ক ও অন্যান্য তথ্য উৎসের Hyper Link প্রদান করবে। এক কথায় এই সেবা আপনি আপনার অফিসে ও বাড়ীতে বসে Internet এর মাধ্যমে এই গ্রন্থাগারের বিভিন্ন প্রকাশনা পড়তে ও ডাউন লোড করতে পারবেন।

 
প্রিয় সংযোগ
বাংলাদেশ জাতীয় ওয়েব পোর্টাল

প্রধান মন্ত্রীর  কার্যালয়

বাংলাদেশ সরকারের ফরম

বিজি প্রেস

ই তথ্য কোষ

NEW ARRIVAL

© ২০০৭-২০০৮ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক সংরক্ষিত